দেশজুড়ে

গ্রামবাসীর ধাওয়া খেয়ে ছাগলসহ প্রাইভেট কার রেখে পালাল চোরের দল

  জাগো কণ্ঠ ডেস্ক ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ , ৩:২৫ পূর্বাহ্ণ

চুয়াডাঙ্গায় চুরির পর গ্রামবাসীর ধাওয়া খেয়ে ছাগলসহ প্রাইভেট কার ফেলে পালিয়েছে একদল চোর। শুক্রবার (১৬ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার জাফরপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ছাগলসহ প্রাইভেট কারটি উদ্ধার করে থানা হেফাজতে নিয়েছে। রাতেই ছাগলের মালিক বাদী হয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় একটি মামলা করেছেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহাব্বুর রহমান কাজল।

স্থানীয়রা জানায়, শুক্রবার জুম্মার নামাজের আগে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার ডিঙ্গেদহ-মানিকদিহি পাড়ার মজিবর রহমানের ছেলে রাসেল হোসেনের একটি ছাগল চুরি করে প্রাইভেট কারে তুলে নিয়ে পালানোর চেষ্টা করে একদল চোর। এ সময় প্রাইভেট কারের মধ্যে ছাগল দেখতে পেয়ে গ্রামবাসী ধাওয়া দেয়। চোরের দল জাফরপুর এলাকায় পৌঁছে শ্রমিকদের যন্ত্রাংশে চাপা দেয়। উত্তেজিত শ্রমিকরা গতিরোধ করলে চুয়াডাঙ্গা যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের পাশে ছাগলসহ প্রাইভেট কারটি ফেলে পালিয়ে যায় তারা।

আশিক জ্যাকি নামে এক যুবক বলেন, চুয়াডাঙ্গা যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের পাশে একটি ছাগলসহ প্রাইভেট কার ফেলে পালিয়ে যায় চোরের দল। তারা দৌড়ে পালানোর সময় জিজ্ঞাসা করলে জানায়, তাদের প্রাইভেট কারটি দুর্ঘটনার শিকার হয়েছে। এতে জনগণ ধাওয়া দিলে আমরা পালিয়ে আসছি। পরে তাদের ছেড়ে দেয় গ্রামবাসী। এরপর চুরির ঘটনা সামনে আসে।

খবর পেয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর থানা পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে পৌঁছে প্রাইভেট কার ও ছাগলটি উদ্ধার করে থানা হেফাজতে নেয়। চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহাব্বুর রহমান কাজল বলেন, চুরির পর এলাকাবাসীর ধাওয়ায় ছাগলসহ প্রাইভেট কার ফেলে পালিয়েছে চোরের দল। রাতেই ছাগলের মালিক বাদী হয়ে সদর থানায় একটি মামলা করেছেন। প্রাইভেট কার মালিকসহ চোর চক্রের সদস্যদের গ্রেপ্তারে অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ।

আরও খবর: