আন্তর্জাতিক

‘বিশ্বের বিপদ’ মোকাবিলায় সহযোগিতার আবেদন গুতেরেসের

  জাগো কণ্ঠ ডেস্ক ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ , ৫:২২ পূর্বাহ্ণ

‘বিশ্বের বিপদ’ মোকাবিলায় সংহতি ও সহযোগিতার আহ্বান জানিয়েছেন জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস। মঙ্গলবার (১৩ সেপ্টেম্বর) ৭৭তম জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের (ইউএনজিএ) উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে গুতেরেস এ আহ্বান জানান।

বুধবার (১৪ সেপ্টেম্বর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা। সংঘাত, জলবায়ু পরিবর্তন, ‘ভঙ্গুর বৈশ্বিক আর্থিক ব্যবস্থা’, দারিদ্র্য, অসমতা, ক্ষুধা এবং বিভাজনের উল্লেখ করে মঙ্গলবার আন্তোনিও গুতেরেস বলেন, ‘শান্তি, মানবাধিকার এবং টেকসই উন্নয়নের জন্য কাজ করতে গিয়ে আমরা বিপদের মুখোমুখি হয়েছি।’

সাধারণ পরিষদের উচ্চ পর্যায়ের অধিবেশনের আগে জাতিসংঘ প্রধান আরও বলেন, অভিন্ন চ্যালেঞ্জসমূহ মোকাবিলায় দরকার অব্যাহত সংহতি যা আমরা এই সংস্থায় বৃহৎ অঙ্গীকার ও সম্ভাবনার মধ্য দিয়ে প্রদর্শন করি। সবার জন্য চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় অব্যাহত সংহতির প্রয়োজন হবে বলেও জানান তিনি।

আগামী সপ্তাহে বিশ্বের উল্লেখযোগ্য সংখ্যক সরকার ও রাষ্ট্র্রপ্রধান জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে অংশ নেবেন। সেখানে তারা পর্যায়ক্রমে বক্তব্যও রাখবেন।

এদিকে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে অংশ নেওয়ার জন্য রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভকে মস্কোর অনুরোধে ভিসা দেওয়া হয়েছে বলে রাশিয়ান কূটনৈতিক সূত্রের বরাত দিয়ে জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স। তবে অর্ধেক প্রতিনিধিদলের জন্য ভিসা ইস্যু করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

জাতিসংঘে নিযুক্ত রাশিয়ার দূত ভ্যাসিলি নেবেনজয়ার গত ২ সেপ্টেম্বর গুতেরেসকে লেখা একটি চিঠির তথ্য অনুসারে, মস্কো ওয়াশিংটনের কাছে ৫৬টি ভিসা চেয়েছিল। তবে রাশিয়ার কূটনৈতিক সূত্র জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্র ২৪টি ভিসার অনুমোদন করেছে।

১৯৪৭ সালের জাতিসংঘের ‘হেডকোয়ার্টার চুক্তির’ অধীনে যুক্তরাষ্ট্রকে সাধারণত বিদেশী কূটনীতিকদের জন্য জাতিসংঘে প্রবেশের অনুমতি দিতে হয়। কিন্তু ওয়াশিংটন বলছে, নিরাপত্তা, সন্ত্রাসবাদ এবং পররাষ্ট্র নীতির কারণে তারা ভিসা প্রত্যাখ্যান করতে পারে।

জাতিসংঘ এই মাসের শুরুতে বলেছিল, রাশিয়ান প্রতিনিধি দলের ভিসা ইস্যু নিয়ে তারা যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আলোচনা করছে। মূলত চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে প্রতিবেশী ইউক্রেনে মস্কো আক্রমণ করার পর থেকে যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার মধ্যে সম্পর্ক ছিন্ন হয়ে যায়।

জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের উচ্চ-পর্যায়ের অধিবেশন আগামী ২০ সেপ্টেম্বর শুরু হবে।

এদিকে ব্রিটেনের প্রয়াত রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের শেষকৃত্যানুষ্ঠান আগামী সোমবার অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। সেখানে বিশ্বের শতাধিক নেতা অংশ নেবেন বলে আশা করা হচ্ছে। একইদিনে জাতিসংঘে শিক্ষা সংক্রান্ত একটি শীর্ষ সম্মেলন হওয়ার কথা রয়েছে। এতে ৯০ জন নেতা অংশ নেবেন বলে নিশ্চিত করা হয়েছে।

গুতেরেসের মুখপাত্র জানান, প্রয়াত ব্রিটিশ রানির শেষকৃত্যে যোগ দিতে লন্ডন যাবেন না আন্তোনিও গুতেরেস।

আরও খবর: