দেশজুড়ে

আমতলীতে হয়রানী করতে পুকুরে মাছ নিধনের নাটক! সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ

  জাগোকন্ঠ ২৫ জুলাই ২০২২ , ১২:০০ অপরাহ্ণ

আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি:

হয়রানী করতে মোঃ সিদ্দিক মোল্লা নিজের পুকুরে নিজে বিষ প্রয়োগে মাছ নিধনের নাটক সাজিয়ে মিথ্যা মামলা দেয়ার পায়তারা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। শহীদুল মীর সোমবার আমতলী সাংবাদিক ইউনিয়ন কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এমন অভিযোগ করেন।

লিখিত বক্তব্যে শহীদুল মীর বলেন, উপজেলার কুকুয়া গ্রামের ইউনুস মোল্লার ছেলে মোঃ সিদ্দিক মোল্লার সাথে দীর্ঘদিন ধরে আজিমপুর বাজারের একটি প্লট নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। এ প্লট নিয়ে স্থানীয়ভাবে একাধিকবার শালিস বৈঠক হয়। কিন্তু তিনি শালিস বৈঠকের সিদ্ধান্ত মানেননি। পরে সিদ্দিক মোল্লা গত বছর ১২ ডিসেম্বর বরগুনা দ্রুত বিচার আদালতে আমাকে প্রধান আসামী করে ৮ জনের নামে মিথ্যা মামলা দায়ের করেছেন। ওই মামলাটি বর্তমানে আমতলী উপজেলা নিবার্হী অফিসারের কার্যালয়ে তদান্তধীন রয়েছে। কিন্তু ওই মামলায় সুবিধা করতে না পেরে পুনরায় মিথ্যা মামলা সাজাতে গত শনিবার রাতে সিদ্দিক মোল্লা নিজের পুকুরে নিজে বিষ প্রয়োগ করে মাছ নিধনের নাটক সাজিয়ে আমাকে ও আমার ভাই শাহীন মীরকে জড়িয়ে বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় বক্তব্য দিয়েছেন বলে সংবাদ সম্মেলনে শহীদুল মীর অভিযোগ করেন। তার এমন বক্তব্য উদ্দেশ্য প্রনোদিত ও হয়রানী মুলক। আমরা তার এমন হয়রানী থেকে মুক্তি পেতে পুলিশ প্রশাসনের সহযোগীতা চাই। সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন মোঃ শাহীন মীর।

এ বিষয়ে সিদ্দিক মোল্লার মুঠোফোনে (০১৭১৯৫৬৫২২২) বারবার যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন ধরেনি।

আমতলী থানার ওসি একেএম মিজানুর রহমান বলেন, মৎস্য অধিদপ্তরের প্রতিবেদন ও তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। হয়রানী করতে পুলিশ প্রশাসন কাউকে সহযোগী করবে না।

আরও খবর: