খেলাধুলা

আগামী মৌসুম থেকেই আড়াই মাসের দীর্ঘ ‘আইপিএল’

  জাগোকন্ঠ ১৫ জুন ২০২২ , ৯:১১ পূর্বাহ্ণ

আগামী মৌসুম থেকে আড়াই মাস সময় নিয়ে মাঠে গড়াবে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল)। এমনটা নিশ্চিত করেছেন বোর্ড অব কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়ার (বিসিসিআই) সদস্য সচিব জয় শাহ।

এই সময় হবে না কোনো আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। ফলে আইপিএলে অংশ নিতে পারবেন বিশ্বের নামিদামি সব ক্রিকেটাররা। মঙ্গলবার (১৪ জুন) ভারতীয় সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এমনটাই জানিয়েছেন বিসিসিআইয়ের কর্মকর্তা।

তিনি বলেন, ‘কিভাবে ৯৪ ম্যাচের আইপিএল করা যায় সেটা আমরা ভেবে দেখব। তবে আগামী বছর থেকে আইসিসির ফিউচার ট্যুরস প্রোগ্রামে আইপিএলকে আড়াই মাস সময় দেওয়া হয়েছে। যাতে সব আন্তর্জাতিক ক্রিকেটাররাই অংশ নিতে পারেন। বিভিন্ন দেশের বোর্ড এবং আইসিসির সঙ্গে এ ব্যাপারে আলোচনাও হয়েছে।’

আইপিএলের দলগুলো যেনো দেশের বাইরেও খেলতে পারে সেই ব্যাপারটিও গুরুত্বসহকারে দেখছে বিসিসিআই। জয় জানিয়েছেন, অনেক ফ্র্যাঞ্চাইজি বিভিন্ন দেশে গিয়ে প্রীতি ম্যাচ খেলার আগ্রহ প্রকাশ করেছে। তাই তারা বিভিন্ন দেশের বোর্ডের সঙ্গেও এই ব্যাপারে আলোচনা করছেন।

বিসিসিআইয়ের সদস্য সচিব বলেন, ‘এই ব্যাপারটাই সবার সঙ্গে আলোচনা করে দেখতে হবে। অনেক ফ্র্যাঞ্চাইজি ইচ্ছেপ্রকাশ করেছে বিদেশে গিয়ে প্রীতি ম্যাচ খেলার ব্যাপারে। সেটাকে গুরুত্বসহকারে দেখা হচ্ছে। এর আগে অন্য দেশের বোর্ডগুলির সঙ্গে কথা বলতে হবে এবং আন্তর্জাতিক ক্রিকেটারদের সূচির ব্যাপারে জানতে হবে।’

আইপিএলের এই দীর্ঘ সূচির কারণে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের কোনো ক্ষতি হবে না বলেই মনে করেন জয়। সেই সঙ্গে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে শক্তিশালী করতে ভারত নিয়মিত ছোটো দলগুলোর বিপক্ষে খেলবে বলেও জানিয়েছেন তিনি। এর উদাহরণ স্বরূপ আসন্ন আয়ারল্যান্ড সিরিজের কথা তুলে ধরেছেন তিনি।

বিসিসিআইয়ের এই কর্মকর্তার ভাষ্য, ‘বিশ্ব ক্রিকেট শক্তিশালী হলেই ভারতীয় ক্রিকেট শক্তিশালী হবে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের প্রতি বিসিসিআই দায়বদ্ধ। শুধু ইংল্যান্ড বা অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজ নয়, ভারত ছোট দলের বিপক্ষেও খেলবে। সব ফরম্যাটে সব দ্বিপাক্ষিক সিরিজকেই আমরা গুরুত্ব দেব। এই মাসেই আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলছি। শক্তিশালী আন্তর্জাতিক ক্রিকেট গড়ে তোলার জন্য ছোট দেশগুলির সঙ্গে খেলে আগে তাদের শক্তিশালী করতে চাই।’

আরও খবর: