1. mdmobinali112@gmail.com : admin2020 :
  2. mdalimobin112@gmail.com : Ali Mobin : Ali Mobin
বৃহস্পতিবার, ১৫ এপ্রিল ২০২১, ০২:১৫ পূর্বাহ্ন

৩১ আগস্ট পর্যন্ত গনপরিবহনে দিতে হবে বেশি ভাড়া| জাগোকণ্ঠ

  • আপডেট টাইম : বুধবার, ১৯ আগস্ট, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা: সামাজিক দূরত্ব ও সুরক্ষা নীতির বাস্তবায়নসহ ১১ শর্তে ৩১ মে থেকে ৬০ শতাংশ বেশি ভাড়ায় গণপরিবহন চালু করেছিল সরকার। এই ভাড়া আগামী ৩১ আগস্ট পর্যন্ত চলবে। বুধবার বিআরটিএ’র প্রধান কার্যালয়ে গণপরিবহন মালিক-শ্রমিকদের সঙ্গে এক বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

৩১ আগস্টের পর থেকে যাতে আগের ভাড়ায় বাসে যাতায়াত করে সে সংক্রান্ত একটি প্রস্তাবনা তৈরি করে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে। ভাড়া কমানোর প্রস্তাবনায় পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের দাবি, সাধারণ যাত্রীদের অভিযোগগুলোও উল্লেখ থাকবে বলেও জানা গেছে। প্রস্তাবনার পাশাপাশি দুই সিটেই যাত্রী বসার প্রস্তাবনা থাকবে। তবে এক্ষেত্রে প্রত্যেক যাত্রীর জন্য মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করা, গাদাগাদি করে যাত্রী না তোলা এবং সুরক্ষার সব ধরনের ব্যবস্থা গণপরিবহনে রাখার যে সিদ্ধান্ত হয়েছে সেগুলোও তুলে ধরা হবে প্রস্তাবনায়। বর্ধিত ভাড়াই কার্যকর থাকবে নাকি পূর্বের মতো স্বাভাবিক যে ভাড়া সেটা কার্যকর হবে সে ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে মন্ত্রিপরিষদ।

বাংলাদেশ বাস পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্যাহ বলেন, ‘বর্ধিত ভাড়ার যে নির্দেশনা সেটার কিছু তো ব্যত্যয় ঘটেছেই। তবে বিআরটিএ বা হাইওয়ে পুলিশ কিংবা জেলা পুলিশ তো সেটা কন্ট্রোলও করতে পারেনি বা দেখভাল করা সম্ভবও নয়। তাছাড়া স্বাস্থ্যবিধি মেনে বর্ধিত ভাড়ার নির্দেশনার কারণে যাত্রীদেরও তো অতিরিক্ত ভাড়া গুনতে হয়েছে। কিন্তু খেয়াল করুন সবই চলছে স্বাভাবিক নিয়মে। সিএনজি, লেগুনা, প্রাইভেটকার সব জায়গায়ই তো গাদাগাদি। শুধু বাস নিয়েই বেশি সমালোচনা বা প্রশ্ন উঠছে।

উল্লেখ্য, গত ৩১ মে থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে গণপরিবহন চালুর অনুমতি দেয়ার পর ঈদুল আজহার আগ পর্যন্ত স্বাস্থ্যবিধির বেশ ভালো প্রয়োগেই চলছিল গণপরিবহন। তবে ঈদযাত্রায় ও ঈদ-পরবর্তী থেকে স্বাস্থ্যবিধির ধার ধারছে না গণপরিবহন। অনিয়ম করে যাত্রী বেশি নেয়া হচ্ছে। আদায় করা হচ্ছে বর্ধিত ভাড়াও। এদিকে গণপরিবহনের ভাড়া ৬০ শতাংশ বাড়িয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের জারি করা প্রজ্ঞাপন স্থগিত চেয়ে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব ও বিআরটিএ চেয়ারম্যানের প্রতি লিগ্যাল নোটিশ পাঠানো হয়েছে। ১২ আগস্ট অ্যাডভোকেট মো. আতিকুর রহমানের পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মো. হাসিম উদ্দিন এই নোটিশ পাঠান।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..