1. mdmobinali112@gmail.com : admin2020 :
  2. mdalimobin112@gmail.com : Ali Mobin : Ali Mobin
সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১, ১০:৪১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
মেডিকেলে চান্স পেয়েও ভর্তি এবং পড়াশুনা চালানো অনিশ্চিত রাবেয়ার,দায়িত্ব নিলেন উপমন্ত্রী বগুড়া মেডিকেল কলেজে ভর্তির সুযোগ পেল দরিদ্র চায়ের দোকানদারের ছেলে কিরন! স্বেচ্ছাসেবক দলের সাংগঠনিক সম্পাদক ইয়াছিন আলী’র উপর সন্ত্রাসী হামলা! দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে রাখতে ব্যবসায়ীদের সহযোগিতা চাইলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী গত ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড ৭৮ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৫৮১৯ গাইবান্ধায় ছুরিকাঘাতে সাবেক সেনা সদস্য নিহত ফেনীতে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৩ হাজার ছুঁই ছুঁই বরেণ্য রবীন্দ্রসঙ্গীত শিল্পী মিতা হক মারা গেছেন খ্যাতিমান লালনশিল্পী ফরিদা পারভীন করোনায় আক্রান্ত স্বনামধন্য গায়ক তপন চৌধুরী প্রাণঘাতী করোনায় আক্রান্ত

সাত বছর ধরে কোমায় থাকা লেফটেন্যান্ট কর্নেল থেকে কর্নেল পদে পদোন্নতি পেল; দেওয়ান মোহাম্মদ তাছাওয়ার রাজা-জাগোকণ্ঠ

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১৮ অক্টোবর, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক:

চাকরির শেষ দিনে বিরল সম্মান পেলেন মরমি কবি হাছন রাজার নাতি দেওয়ান মোহাম্মদ তাছাওয়ার রাজা। বাংলাদেশ সেনাবাহিনী তাকে লেফটেন্যান্ট কর্নেল থেকে কর্নেল পদে পদোন্নতি দিয়েছে। তবে এই পদোন্নতি উদযাপনের মতো অবস্থায় নেই তিনি। সাত বছর ধরে রয়েছেন কোমায়।

সেনাবাহিনীর ইতিহাসে প্রথমবারের মতো এমন সম্মানসূচক পদোন্নতি দেয়া হয়েছে ১২ অক্টোবর। ঢাকা সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতিতে তাছাওয়ার রাজাকে কর্নেল পদমর্যাদায় ভূষিত করেন সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ।

সেনাবাহিনীর অনন্য এ মানবিক দৃষ্টান্তে আপ্লুত তাছাওয়ার রাজার স্ত্রী মোসলেহা মনিরা রাজা। তিনি সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন, এ সম্মানে আমরা গর্বিত। বিদায়বেলায় প্রত্যাশার চেয়ে এটি অনেক বড় এক অর্জন। তার (তাছাওয়ার রাজা) এ বিদায় আমাদের জন্য সুখকর।

মনিরা জানান, ২০১৩ সালের ১১ মার্চ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে কোমায় চলে যান তাছাওয়ার রাজা। একদিন তিনি সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরবেন বলে আশা করেন তিনি।

সিএমএইচের আইসিইউ প্রধান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মাসুদ মজুমদার জানান, তাছাওয়ার রাজার এ অসুস্থতাকে চিকিৎসার ভাষায় বলা হয় হাইপোস্কিক স্মিমিক ইনজুরি টু ব্রেইন ইফেক্টস।

সূত্রমতে, ১৯৮৯ সালের ২৩ জুন দেওয়ান মোহাম্মদ তাছাওয়ার রাজা সেনাবাহিনীতে কমিশন লাভ করেন। ১৯৯৬ সালে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনের অধীনে ইরাক-কুয়েত ও ২০০৭ সালে সুদানে শান্তিরক্ষা মিশনে যান। চাকরি জীবনের ব্যস্ততার মধ্যেও লেখালেখি করেন তাছাওয়ার রাজা। হাছন রাজার জীবন ও কর্ম নিয়ে ‘হাছন রাজা সমগ্র’, মেজর জেনারেল এমএজি ওসমানীকে নিয়ে ‘ও জেনারেল মাই জেনারেল’, ‘সেনাবাহিনীর ইতিহাস’সহ কয়েকটি বই লিখেছেন তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..