দেশজুড়ে

লক্ষ্মীপুরে মালিকানা দোকান থেকে উচ্ছেদ করার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

  জাগোকন্ঠ ১৯ জুন ২০২২ , ৫:১৯ অপরাহ্ণ

লক্ষ্মীপুর বাজার বণিক সমিতি কর্তৃক ও আইনজীবী সালিসি বৈঠকে সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে মালিকানা দোকান থেকে উচ্ছেদ করার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছে ভুক্তভোগী পরিবার। ১৯ জুন (রোববার) দুপুরে শহরের বাগবাড়ি একটি চাইনিজ রেষ্টুরেন্টে এই উপলক্ষে সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনে লক্ষ্মীপুর পৌরসভার ১০ নং ওয়ার্ড মুজুপুর গ্রামের মৃত মোস্তফা হায়দারের পুত্র ও ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আহছান হাবীব মানিক বলেন শহরের হাসপাতাল সড়কের তার একটি দোকারঘর রয়েছে। তিনি বিগত ৪৭ বছর ধরে ওই দোকানে ব্যবসা করেন।

পরে তিনি জনৈক হিমাংসুর নামে এক ব্যাক্তিকে ভাড়া দেন। গত ১৯ বছর যাবত ভাড়া থাকার পর গত ০৪/০৩/২০২২ ইং তারিখে ভাড়াটিয়ার কাছ থেকে দোকান বুঝে নেওয়ার সময় পাশের্^র দোকান ঘরের মালিক শাহানা বেগম জোরপূর্বক তার দোকান ঘর দখলের চেষ্টা করে। পরে সদর থানা পুলিশ ও বণিক সমিতির নেতৃবৃন্দ ঘটনারস্থলে গিয়ে তার দোকানসহ ২ টি দোকানে তালা মেরে দেয়। পরে বণিক সমিতির নেতৃবৃন্দ বৈঠক ও উকিল সালিশের ব্যবস্থা করে।

গত ০৩/০৪/২০২২ ইং তারিখে মধ্যস্থতাকারী আইনজীবী শৈবাল কান্তি সাহা মালিকানা সঠিক ও সম্পত্তির পরিমাপ করে আহছান হাবীব মানিক পক্ষে রায় প্রদান করে। অপর দিকে পৃথক বৈঠকের মাধ্যমে বণিক সমিতি লিখিত ভাবে ওই দোকানের মালিক মানিকের বলে রায় দেন।

এর পরও রাজনৈতিক ক্ষোভে ও অসৎ উদ্দেশে প্রণোদিত ভাবে বণিক সমিতির সভাপতি একে এম সালাহ উদ্দিন টিপু ও সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ জনৈক শাহানা বেগমকে দোকানের চাবি দেয়। এ ঘটনায় দোকানের মালিকানা ফেরত পেতে প্রশাসনসহ সকলের কাছে সুবিচার চেয়েছেন আওয়ামীলীগ নেতা আহসান হাবিব মানিক।

মানিকের অভিযোগ বিগত উপজেলা নির্বাচনে নৌকার প্রার্থীর পক্ষে কাজ করেন এতে দলের বিদ্রোহী হিসেবে নির্বাচন করে জয়লাভ করেন একে এম সালাহ উদ্দিন টিপু। তিনি তার পক্ষে ভোট না করায় বৈধ কাজ পত্র থাকার পরও বিবাদীদের দোকার ঘর বুঝে দেন।

সম্মেলনে মানিকের ভাই আরিফুল হায়দার, ভগ্নিপতি বেলাল হোসেন ও পৌর আওয়ামীলীগ নেতা কামরুল হাসান ফারুক উপস্থিত ছিলেন।

আরও খবর: