1. mdmobinali112@gmail.com : admin2020 :
  2. mdalimobin112@gmail.com : Ali Mobin : Ali Mobin
রবিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২১, ০৮:২১ পূর্বাহ্ন

পল্লবী থানা এলাকায় কোন মাদক কারবারী থাকতে পারবে না; ওসি কাজী ওয়াজেদ মিয়া ।জাগোকণ্ঠ

  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২১ অক্টোবর, ২০২০
মিরপুর প্রতিনিধি:
পল্লবী থানা এলাকায় কোন মাদক কারবারী(ক্রেতা-বিক্রেতা) থাকতে পারবে না উল্লেখ করে মাদকের সাথে সংশ্লিষ্ট সকলকে থানা এলাকা ছেড়ে চলে যেতে কঠোর হুশিয়ারি  দিলেন ডিএমপির  পল্লবী থানার ওসি কাজী ওয়াজেদ মিয়া ৷ মাদকের কুফল,মাদকের বিস্তার ও প্রতিরোধে করণীয় শীর্ষক আলোচনায় পল্লবী পুলিশ ও এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিদের উদ্যোগে এক সচেতনতামূলক উঠান বৈঠকে এ কঠোর হুশিয়ারী দেন তিনি।
২০শে অক্টোবর (মঙ্গলবার) সন্ধ্যায়  ডিএমপির মিরপুর বিভাগের পল্লবী থানার অন্তর্গত ১০নং বেনারশি পল্লীর ১৯নং রোডে স্থানীয় আবদুল ওয়াহিদের সভাপতিত্বে ও প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন পল্লবী থানার ওসি কাজী ওয়াজেদ মিয়া ৷এসআই কাউসার,এসআই রাজীব ও এসআই মোর্শেদের নেতৃত্বে এই উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন অনুষ্ঠানের সভাপতি আবদুল ওয়াহিদ,ইমারত হোসেন,মিজানুর রহমান ও নাসির উদ্দীন ৷

বক্তব্যে বক্তারা মাদক নির্মুলে প্রশাসনের ব্যর্থতাকে দায়ী করে বলেন,পুলিশ চাইলে সমাজ থেকে মাদক  নির্মুল করতে পারে কিন্তু কিছু অসাধু পুলিশের সহায়তায় সাপ্তাহিক ও মাসিক চুক্তিতে তারা এই ব্যবসা চালাচ্ছে ৷ পুলিশ কঠোর হলেই মাদকসেবী ও ব্যবসায়ীরা হয় ভাল হবে নতুবা এলাকা ছাড়তে বাধ্য হবে ৷ বক্তারা বলেন আমরা এখানে বিহারী বাঙ্গালী বুঝিনা,আমরা সবাই বাঙ্গালী,আমরা সবাই ভাই ভাই ৷ আমরা চাই এলাকা মাদকমুক্ত হোক ৷ গভীর রাতে এই এলাকাতে মানুষের চলাচল বেশী হয় বলেও বক্তারা অভিযোগ করেন ৷

এসময় পল্লবী থানার ওসি কাজী ওয়াজেদ মিয়া  বলেন,আমি নিজে কোন নেশা করিনা,কাউকে নেশা করতেও দেবনা,মাদক বিক্রি করে কারা,খায় কারা ৷ মাদক কারবারীরা সবাই এই সমাজের কারো ভাই কারো সন্তান আবার কারো প্রতিবেশী ৷ নাম প্রকাশ করে তিনি কিছু নেতাদের উদ্দেশ্যে বলেন আপনারা সভা,সেমিনারে লম্বা লম্বা বুলি আওড়াবেন আবার মাদক ব্যবসায়ীকে পুলিশ গ্রেফতার করলে তার জন্য তদবীর,সুপারিশ করবেন,পুলিশের সাথে দালালী করে ভাগ বাটোয়ারা করে খাবেন, জনতাকে উস্কে দিয়ে পুলিশের উপর হামলা করাবেন,আমি আপনাদের সতর্ক করে দিয়েই বলছি আমার বাবা বললেও আমি কাউকে ছাড় দিবনা প্রয়োজনে সুপারিশ কারীকে গ্রেফতারের হুমকি দেন তিনি ৷
তিনি আরো বলেন মুজিববর্ষের অঙ্গীকার মাদকমুক্ত সমাজ গড়তে প্রধানমন্ত্রীর জিরো টলারেন্সের ঘোষনাকে বাষ্তবায়িত করতে তিনি যদি কোন পুলিশ সদস্য ফর্মার মাধ্যমে কাউকে হয়রানী করে,মাদক স্পট থেকে যদি সাপ্তাহিক ও মাসিক চাঁদা নেয়,মাদক সহ ধরে যদি কাউকে গাড়ীতে ঘুরিয়ে টাকার বিনিময়ে তাকে ছেড়ে দেয় তবে সুনিদিৃষ্ট প্রমান সহ আমাকে দিবেন আমি ঐ কুলাঙ্গার,অসৎ পুলিশ সদস্যকে পরদিনই পল্লবী ছাড়া করব না হয় আমিই পল্লবী ছেড়ে চলে যাব ৷ কোন ফর্মা পুলিশের নাম ভাঙ্গিয়ে  মাদক ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে চাঁদা নিতে আসলে তাকে বেঁধে পুলিশের হাতে তুলে দিতে বলেন ৷
পুলিশের উপর আবার কোন আক্রমন হলে তিনি কাউকে ছাড় দিবেননা বলেও হুশিয়ারী দেন ৷
এ সময় সভায় উপস্থিত উৎসুক জনতা তাদের মতামত প্রকাশ করে তার সাথে একাত্মতা ঘোষণা করেন। তারা পুলিশের এই কর্মকর্তার এমন ভুমিকায় বার বার হাত তালি দিয়ে একাত্মতা প্রকাশসহ পুলিশকে সহয়তা করার অঙ্গীকার করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..