রাজধানী

পল্লবীতে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে, কুর্মিটোলা ক্যাম্পবাসীর মানববন্ধন

  জাগোকন্ঠ ১৪ জুন ২০২২ , ৭:২৩ পূর্বাহ্ণ

রাজধানীর পল্লবীতে মিথ্যা মামলায় ৭ জনের অব্যাহত দাবিতে মানববন্ধন করেছেন কুর্মিটোলা ক্যাম্পবাসী ও এস.পি.জি.আর.সি কুর্মিটোলা ব্রাঞ্চ। মঙ্গলবার (১৪ জুন) সকাল ১১টায় কালশী কুর্মিটোলা ক্যাম্পের সামনের রাস্তায় মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। গত (১৪জুন) ২০১৪ কালশী কুর্মিটোলা বিহারী ক্যাম্পের ৯ জনকে পুড়িয়ে ১জনকে গুলি করে হত্যার প্রতিবাদে কুর্মিটোলা বিহারী ক্যাম্পে ও এস. পি. জি. আর. সির স্থানীয় শাখা সংগঠনের মিরপুর ১০,১১,১২ সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও মোহাম্মাদিয়া ওয়েলফেয়ারের প্রতিষ্ঠাতা শাহ্ মান্না উপস্থিত ছিলেন।

মানববন্ধনে এস.পি.জি.আর.সির সভাপতি মো.মইন উদ্দিন মুন্না বক্তব্যে দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, দীর্ঘ আট বছর যাবত আমরা আন্দোলন ও প্রতিবাদ বিক্ষোব করে যাচ্ছি। মামলার কোনো অগ্রগতি নেই বিভিন্ন আইনি সংস্থার কাছে দায়িত্ব দেয়া হলেও একজন আসামী গ্রেফতার করে আদালতকে দেখাতে পারে নাই বলে অভিযোগ করেন।

এস.পি.জি.আর.সির,সাধারণ সম্পাদক নাইম আনসারী বলেন, এই যে, ৭জনের নামে মিথ্যা মামলা ও অজ্ঞাত তিন হাজার ব্যাক্তির নামে যে মামলা করা হয়েছে অতি শীঘ্রই প্রত্যাহার করা হউক ও আদমজীতে অমানবিক নির্যাতন ক্যাম্পবাসীদের উপর নির্যাতন করা হইচ্ছে অতিশীগ্রই বন্ধ করা হউক। নারায়নগঞ্জের কুমুদিনী বাগানের যাদেরকে উচ্ছেদ করা হয়েছে তাদেরকে পূর্নবাসন করা হউক। চট্টগ্রামে ক্যাম্পে যে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে সেটা অতিশীঘ্রই বহাল করা হউক এবং এস. পি. জি. আর. সির নেতাকর্মীদের সহ ক্যাম্পবাসীদের উপর যে সকল মিথ্যা মামলা করা আছে সেটা প্রত্যাহার করা হউক। ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের মধ্যে ১জন বেচে যাওয়া ফারজানা আক্তার এর পুর্নবাসন চিকিৎসা ও শিক্ষা মানবিক সহযোগিতার জন্য পদক্ষেপ গ্রহণ করা হউক।

বক্তব্যে মোহাম্মাদীয়া ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনে প্রতিষ্ঠাতা শাহ্ মান্না বলেন, কালশী হত্যাকাণ্ডে বেঁচে যাওয়া একমাত্র মেয়ে ফারজানা আক্তার কে চিকিৎসা, শিক্ষা ও পুনর্বাসন এর জরুরিভাবে ব্যবস্থা গ্রহণ সহ অনতিবিলম্বে তদন্ত কারী সংস্থা পিবিআই কে আদালতের রিপোর্ট প্রেরণ সহ দোষী আসমী গ্রেফতার করার দাবি জানান। এতে আরোবক্তব্য রাখেন খোরশেদ আলম, মো:আকান, এস.পি.জি.আর.সি ও ক্যাম্পের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। মানববন্ধন পরিচালনা করেন এস.পি.জি.আর.সির দফতর সম্পাদক মো.রাজু আহমেদ। মানববন্ধন সঞ্চালন করেন মো.মোস্তাক আহমদ মাল্লু।