1. mdmobinali112@gmail.com : admin2020 :
  2. mdalimobin112@gmail.com : Ali Mobin : Ali Mobin
মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ০২:০০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
সাংবাদিকদের লকডাউনে ‘মুভমেন্ট পাস’ নিতে হবে না : আইজিপি মাহে রমজান উপলক্ষে এক হাজার অসহায় পরিবারকে ইফতার সামগ্রী বিতরন করলেন; আ: লতিফ হাঐকার ফরিদপুরের ভাঙ্গায় দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১ সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী কীভাবে নেবেন ‘মুভমেন্ট পাস’ জেনে নিন লকডাউনে কর্মহীন পরিবার পাবে নগদ ৫০০ টাকা ও খাবার বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল : চিকিৎসক চন্দ্রগঞ্জে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে ঢেউনিট ও আর্থিক সহায়তার চেক বিতরন স্বাস্থ্য বিধি মেনে ই চলতে হবে; ডামুড্যা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মর্তুজা আল মুঈদ নড়িয়ায় ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশন উদ্বোধন করলেন; উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম

খুলনার দাকোপে ফোন পেয়ে ত্রান নিয়ে হাজির হলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ৫ এপ্রিল, ২০২০

স্বপন কুমার রায়, খুলনা ব্যুরো প্রধানঃ

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সরকারের নির্দেশ মেনে হোম কোয়ারেনটাইনে থেকে কর্মহীন হয়ে পড়েছে হাজারো মানুষ।অর্থের অভাবে অনেকে খাদ্যদ্রব্য কিনতে না পারলেও আত্মসম্মানের জন্য অভাবের কথা বলতেও পারছে না। খাবারের অভাবে পরিবারের ৪ জন অভুক্ত। শনিবার রাত নয়টার দিকে দাকোপ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবদুল ওয়াদুদের সরকারি নম্বরে একটি ফোন আসে। ফোন কারী নিজের পরিচয় দেন চালনা পৌরসভার নলোপাড়ার লুখফর শেখ একজন চা বিক্রেতা। এই চায়ের দোকানের আয়ের উপর স্ত্রী ও দুই সন্তান সহ চারজনের জিবীকা নির্বাহ হয়। কিন্তু করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে চলা চল সীমিত করে দিলে সংসারের আয়ের একমাত্র অবলম্বন চায়ের দোকানটিও বন্ধ হয়ে যায়। খেয়ে-না-খেয়ে কষ্টে দিন কাটছিল তাদের।এই অবস্থায় ঘরে দুদিন ধরে খাবার নেই জানিয়ে কাঁদো কাঁদো কণ্ঠে দাকোপ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে  সরকারি মুঠোফোনে ফোন দেন চা-বিক্রেতার স্ত্রী। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা  চা-বিক্রেতার নম্বরে কল করে সব জেনে রাতেই খাদ্য সহায়তা নিয়ে তাঁর বাড়িতে হাজির হন। দাকোপ নির্বাহী কর্মকর্তা  আবদুল ওয়াদুদ বলেন, সমাজে এক শ্রেণির লোক আছেন, যারা কষ্ট ও অভাবে থাকলেও মানুষের কাছে হাত পাততে পারেন না। করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সরকার কর্মহীন হতদরিদ্র মানুষদের খাদ্য সহায়তা দিয়ে যাচ্ছেন। এই উপজেলার মধ্যে কেউ খাদ্যাভাবে থাকলে তারা  আমার সাথে যোগাযোগ করলে তাদের বাড়িতে খাদ্যসামগ্রী পৌছে যাবে।.

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..