দেশজুড়ে

ঈদকে সামনে রেখে বেড়েছে গরু চুরি: দুই পিকাপ চার গরুসহ ৫ চোর আটক

  জাগোকন্ঠ ৩০ জুন ২০২২ , ১:৪১ অপরাহ্ণ

মাদারীপুর প্রতিনিধি:

ইদুল আজাহার ঈদকে সামনে রেখে মাদারীপুর অন্তঃজেলা ও বিভিন্ন জেলার চোর চক্র গুলি সক্রিয় হয়ে উঠেছে। অন্তঃজেলা চোর চক্রের সদস্যর তথ্যের ভিত্তিতে দলে দলে ভাগ হয়ে দেশের বিভিন্ন জেলায় করে গরু চুরি। এরা রাতের আধারে গৃহস্ত ও খামারিদের গরু চুরি করে বিভিন্ন হাট বাজারে বিক্রি করে। আজ বৃহস্পতিবার ভোর রাতে মাদারীপুরের কালকিনিতে চুরি করা ৪টি গরু,দুটি পিকাপসহ চোর চক্রের ৫ সদস্যকে আকট করেছে কালকিনি থানা পুলিশ। পুলিশ, এলাকা ও ভূক্তভোগী পরিবারের অভিযোগে জানা গেছে, কালকিনি উপজেলার বাঁশগাড়ী ইউনিয়নের খাসেরহাট গোলচত্বরের পাসে জামাল বেপারীর গরুর খামারে ৮—১০ জন চোর চক্রের সদস্যর একটি দল হানা দেন। এ সময় খামারে অবস্থান করা খামারি রাব্বি, আলভী ও রাতুলকে রশিদিয়ে বেঁধে ফেলে রাখে এবং চেচামেচি করলে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে চুপ করে রাখে। পরে খামারের চারটি গরু দুইটি পিকাপে উঠিয়ে নিয়ে রওনা দেয় চোরের দল । রাব্বি নামক খামারি দড়ি থেকে হাত পা খুলে থানা পুলিশকে ফোন দিলে কালকিনি থানার ওসি মোঃ শামীম হোসেন সঙ্গীয় ফোর্সনিয়ে পালানোর সময় উপজেলার মৌলভী বাজার থেকে ৪টি গরু,দুটি পিকাপসহ চোর চক্রের ৫ সদস্যকে আটক করেন।আটককৃতরা হলেন কালকিনি উপজেলার বাঁশগাড়ী ইউনিয়নের বজরুশাহ গ্রামের মিন্টু সরদারের ছেলে সজিব সরদার (২৮), সিলেটের দক্ষিন সুরমা থানা এলাকার বেটুকরপার গ্রামের তাজ আলী মিয়ার ছেলে কামরুল ইসলাম (২৮), পিরোজপুরের মটবাড়ীয়া থানা এলাকার দানিসাপা গ্রামের মোঃ বাদশা মিয়ার ছেলে মোঃ মিজানুর রহমান (৩২), মানিকগঞ্জের সিংরাইল থানা এলাকার বাজিপাড়া গ্রামের জুলমতের ছেলে মোঃ সাকিব (১৬) ও ঢাকার মিরপুর দারুসসালাম এলাকার রফিকুল ইসলামের ছেলে ইমন (২০)। এ ব্যাপারে কালকিনি থানার ওসি মোঃ শামীম হোসেন বলেন, চোর চক্রের ৫ সদস্যকে আটক করা হয়েছে। এবং এসময় দুইটি পিকাপসহ ৪টি গরু উদ্ধার করেছি এবং আরো চোর সদস্য আটকের চেষ্ঠা চলছে পরে প্রেস ব্রিফিং করে বিস্তারিত জানানো হবে।

আরও খবর: