1. mdmobinali112@gmail.com : admin2020 :
  2. mdalimobin112@gmail.com : Ali Mobin : Ali Mobin
বৃহস্পতিবার, ১৫ এপ্রিল ২০২১, ০২:০৯ পূর্বাহ্ন

অসহায় হতদরিদ্র কর্মহীন খেটে খাওয়া মানুষ ত্রান বিতরন করলেন বিএনপি নেতা সাজু

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৫ মে, ২০২০

মোঃআমিন হোসাইন,স্টাফ রিপোর্টারঃ

করোনা মহামারিতে অসহায় হতদরিদ্র কর্মহীন খেটে খাওয়া মানুষ ত্রান বিতরন করলেন বিএনপি নেতা সাজু। এসব মানুষের পাশে রাজনীতিবিদ থেকে শুরু করে বিত্তবানরা অনেকে এগিয়ে এসেছেন। করোনাভাইরাসের প্রকোপ শুরুর পর থেকে ঢাকা-১৪ আসনের অসহায় সাধারণ মানুষ, কষ্টে থাকা নেতাকর্মীদের পাশে দাঁড়িয়েছেন দারুস সালাম থানা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি এস এ সিদ্দিক সাজু, একাদশ সংসদ নির্বাচনে দলের প্রার্থী ছিলেন। মিরপুরের পাঁচবারের সাবেক সংসদ সদস্য ও ঢাকার সাবেক ডেপুটি মেয়র এস এ খালেকের ছেলে সাজু মঙ্গলবার নিজ এলাকার মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন। ‘যতদিন মানুষ কষ্টে থাকবে ততদিন পাশে থাকাব ঘোষণা দিয়েছেন, এই তরুণ নেতা। রাজধানীর গাবতলী( ৯ নং ওয়ার্ড), লালকুঠি মাজার রোড (১০ নং ওয়ার্ড), মিরপুর শাহ আলী মাজার শরীফ সংলগ্ন রাস্তা, উত্তর বিশিল, সনি সিনেমার মোড়, মিরপুর ২ ও ৬নং এলাকার অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন তিনি।

মঙ্গলবার দারুস সালাম থানা বিএনপির( ৯ ও ১০ নং ওয়ার্ডের) কর্মীদের মাঝে চলমান কর্মসুচীর মধ্যবর্তী ধাপে এস এ সিদ্দিক সাজুর সহযোগিতায়, শুভেচ্ছা সামগ্রী বিতরণ করেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সহ-সভাপতি হাজী মাসুদ খান, দারুস সালাম থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আরিফ মৃধা,  যুবদল সভাপতি সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ, ওয়ার্ড বিএনপির নেতারা কর্মিরা উপস্থিত ছিলেন।

এসময়ে বিএনপির নেতা এস এ সিদ্দিক সাজু জাগোকণ্ঠকে বলেন  সাধ্যমতো এলাকার দিনমজুর, ছিন্নমূল মানুষদের খাবার জোগানের এই ধারা অব্যাহত থাকবে, করোনা নয়, আগেও যেকোনো উৎসব, বিয়ে  এলাকার নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছি, অসংখ্য মামলা নিয়েও দলের রাজনীতিতে সক্রিয় রয়েছি।

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের শাসনামলে ১৯৭৯ সালে বিএনপির মনোনয়নে নিয়ে প্রথমবার সাংসদ নির্বাচিত হন এস এ সিদ্দিক সাজুর বাবা এস এ খালেক। এর পর ৮৬ ও ৮৮ সালে এরশাদের শাসনামলে পর পর দুবার সংসদ নির্বাচিত হন তিনি। এই দুই নির্বাচনে বিএনপি অংশ না নেয়ায় তিনি জাতীয় পার্টির থেকে নমিনেশন নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। এরপর ১৯৯৬ ও ২০০১ সালে বিএনপির মনোনয়নে নির্বাচন করে বিজয়ী হন। দলের  কেন্দ্রীয় নেতা এস এ খালেক।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..